কোভিড ১৯: আপনার এবং আপনার শিশুর ভাল থাকার উপায়

সকালের কণ্ঠ

নিম্নলিখিত টিপস আপনাকে COVID-19 এর বৈশ্বিক প্রাদুর্ভাবের সময় মানসিক চাপ এবং উদ্বেগ কমাতে সহায়তা করবে। পিতা বা মাতা হিসাবে টিপস গুলি আপনার জন্য, তবে এগুলি শিশুর যত্ন নেওয়ার ক্ষেত্রে বড় ভাইবোন বা শিশুদের অন্যান্য যত্নকারীদের মাধ্যমেও ব্যবহার করা যেতে পারে।
আপনার ভাল থাকাটা কেন গুরুত্বপূর্ণ
মানসিক চাপ, ভয় এবং উদ্বেগ বিভিন্নভাবে মানুষকে প্রভাবিত করে , এসবের কারণে আপনি শারীরিক এবং মানসিকভাবে ভাবে বিপর্যস্ত অনুভব করতে পারেন। এই সময়গুলিতে আপনার ভাল থাকা অপরিহার্য।
পিতা-মাতা হিসাবে আপনার ভাল থাকাটা কেন এতটা গুরুত্বপূর্ণ তা জানতে দয়া করে নীচে প্রদত্ত তালিকাটি দেখুনঃ
• আপনি ভালভাবে চিন্তা করতে এবং সিদ্ধান্ত নিতে সক্ষম হবেন
• আপনি আরও ভালভাবে পরিস্থিতি মোকাবেলা করতে সক্ষম হবেন
• আপনার শিশুদের মধ্যে যারা হতাশা, ক্রোধ, দু: খ ইত্যাদি প্রকাশ করে তাদের সাথে আপনি আরও ধৈর্যশীল হবেন
• আপনি আপনার শিশুদের অনুভূতি এবং আচরণ আরও ভালভাবে বুঝতে সক্ষম হবেন, ভাল থাকা আপনার শরীরকেও শক্তিশালী হতে সহায়তা করে।
• ১২ বছর বয়স পর্যন্ত শিশুরা বাইরের জগতকে সেভাবেই বোঝে যেভাবে আপনি বাইরের বিশ্বের বিভিন্ন ঘটনার প্রতি প্রতিক্রিয়া দেখান। তাদের ভাল থাকা সরাসরি আপনার ভাল থাকার উপর নির্ভর করে। তারা আপনার কাজকর্ম এবং মানসিক চাপের প্রতিক্রিয়াগুলি অনুসরণ করে।
আপনার মানসিক বা আবেগীয়ভাবে ভাল থাকার জন্য টিপস
এই কঠিন সময়ে আপনি ভাল থাকতে পারবেন এমন অনেকগুলি উপায় রয়েছে। দয়া করে নীচের টিপস এর তালিকাটি দেখুন। আপনি যদি আগে ঘরে বসে স্বাচ্ছন্দ্যপূর্ণ কোনও অনুষ্ঠান বা কাজকর্মে নিযুক্ত থাকেন তবে চেষ্টা করুন এগুলি আপনার প্রতিদিনের রুটিনে রাখতে।
• পর্যাপ্ত বিশ্রাম নিন, তবে বিছানায় স্বাভাবিকের চেয়ে বেশি সময় ব্যয় করবেন না, আপনার নিয়মিত ঘুমের সময়সূচী ঠিক রাখুন
• পাঁচ মিনিট হলেও নিজের জন্য সময় নিন
• বন্ধু বা প্রতিবেশীদের সাথে কথা বলুন; আপনি যদি ঘর থেকে বের হতে না পারেন তবে তাদের কল করতে বা খুদে বার্তা পাঠাতে পারেন
• সব সময় খবর দেখবেন না বা খুঁজবেন না, তার পরিবর্তে প্রতিদিন একবার নির্ধারিত সময়ে সংবাদ শুনুন এবং নিজে অবহিত থাকুন
• গুজব থেকে ঘটনা আলাদা করার চেষ্টা করুন
• আপনি যেখানে বাস করেন সেই জায়গাটি থেক বের হতে না পারলেও প্রতিদিন কিছুটা হাঁটাহাঁটি নিশ্চিত করুন
• একবার আপনি স্বাস্থ্যবিধি এবং অন্যের সাথে পরিচিতি সম্পর্কিত সমস্ত নির্দেশিকা অনুসরণ করুন, নিজে গর্ব অনুভব করুন যে আপনি নিজেকে এবং আপনার পরিবারকে সুরক্ষিত করার জন্য যা কিছু করতে পারেন তা করছেন
• আপনিও একজন মানুষ হন তা গ্রহণ করুন/মেনে নিন। উদ্বেগ, ভয় বা রাগ এসব অনুভূতি স্বাভাবিক। একবার আপনি এই অনুভূতিগুলিকে স্বীকৃতি দিন, সুন্দর জিনিসগুলি নিয়ে চিন্তা করার চেষ্টা করুন, আরও কোমলভাবে এবং আস্তে আস্তে কথা বলার চেষ্টা করুন এবং স্বাভাবিকভাবে শ্বাস নিন।
শিশুদের ভাল বোধ করার জন্য টিপস:
সকল বয়সী শিশুদের জন্য টিপস
• শিশুদের দেখতে হবে যে তাদের জীবনের প্রতিটি দিকই পরিবর্তন হয়নি। যথাসম্ভব, খাওয়ার সময়, পরিষ্কারের সময়, খেলার সময় এবং নিয়মিতভাবে ঘুমের সময় ঠিক রাখতে হবে
• এই প্যাকেজের অন্তর্ভুক্ত অন্যান্য কর্মকাণ্ডের জন্য দেয়া টিপস গুলাও ব্যবহার করুন
• যথাসম্ভব আপনার শিশুদের স্কুলের বাইরের সময়টাতেও শেখা এবং খেলা চালিয়ে যেতে সহায়তা করুন।
প্রতি বয়সের টিপস: ০-৩ বছর বয়সী শিশু
• শিশুরা আপনার মানসিকভাবে উপস্থিতি এবং শারীরিক ঘনিষ্ঠতা সম্পর্কে সংবেদনশীল। শিশু হওয়া সত্ত্বেও আপনি তাদের সাথে আগে যেমন ব্যাবহার করেছিলেন তেমনভাবে সম্বোধন করার জন্য যথাসাধ্য চেষ্টা করুন
• দুই বছর বয়সে প্রায়শই শিশুরা “না” শব্দটি ব্যবহার করে, এটিকে স্বাভাবিক আচরণ হিসাবে গ্রহণ করুন।
প্রতি বয়সের টিপস: ৩-৬ বছর বয়সী শিশু
• আপনার সন্তানকে মনে করিয়ে দিন যে আপনি সেখানে তাদের যত্ন নেওয়ার জন্য আছেন
• কিছু শিশু তাদের আগে অর্জন করা দক্ষতা হারাতে পারে, উদাহরন- তারা বিছানায় পস্রাব করা শুরু করতে পারে, এটি মানসিক চাপের একটি স্বাভাবিক প্রতিক্রিয়া।
• এই যুগের শিশুরা বিভিন্ন জিনিসপত্র নিয়ে ঘাটাঘাটি করে এবং ব্যস্ত থাকতে পছন্দ করে। এটি সীমাবদ্ধ করবেন না তবে আপনি যেখানে বাস করেন সেখানেই এটি সম্পন্ন হচ্ছে তা নিশ্চিত করতে তাদের প্রতি লক্ষ্য রাখুন।

প্রতি বয়সের টিপস: ৬-১১ বছর বয়সী শিশু
• এই বয়সের শিশুরা বাবা-মা, দাদা-দাদী বা তাদের কাছের লোকদের হারানোর বিষয়ে স্বপ্ন দেখে এবং ভয়ও পেতে পারে। তাদেরকে জানান যে আপনি অনুভূতিগুলি বোঝেন, এবং অনুভূতিগুলিকে স্বাভাবিক হিসেবে বুঝাতে চেষ্টা করুন, “আপনি যদি ভাবেন যে ঠাকুরমা বিপদে রয়েছে, তবে এটি ভয়ঙ্কর …”
• আপনার শিশু কী ভাবছে এবং / বা ভয় করছে তা জিজ্ঞাসা করুন (বিশেষত ছোট শিশুরা তাদের ব্যাখ্যা এবং উপলব্ধি তৈরি করে যা বাস্তবতার চেয়ে অনেক বেশি ভয়ঙ্কর হতে পারে)
• শিশুদের কথা বলতে এবং তারা যা ভয় করে তা প্রকাশ করতে দিন। আপনি ব্যবহার করতে পারেন “কিছু শিশুদের ভয় যে…এর মত বাক্যাংশগুলি
• শিশুদের সাথে সত্যগুলি সম্পর্কে কথা বলুন, অতিরঞ্জিত করবেন না, তবে সৎ হন এবং মিথ্যা প্রতিশ্রুতি করবেন না
• আমাদের “ঘরে থাকুন নীতিতে” শিশুদের অবহিত করুন – এটি প্রতিরোধ করার জন্য- কারণ এ মুহূর্তে বাইরে যাওয়া বিপজ্জনক
• আপনার সন্তানকে মনে করিয়ে দিন যে আপনি সেখানে তাদের যত্ন নেওয়ার জন্য আছেন
• আপনার শিশুকে উত্সাহ দিন যে এই পরিস্থিতি চিরকাল থাকবে না (তবে আবার মিথ্যা প্রতিশ্রুতি দেবেন না)।
• পুরো দিন সংবাদমাধ্যম চালু রাখবেন না
• গুরুতর অসুস্থ ব্যক্তি বা নিহতদের সংখ্যা সম্পর্কে কথা বলা এড়িয়ে চলুন।
প্রতি বয়সের টিপস: 12 বছর বা তার বেশি বয়সী শিশু
• এই বয়সের শিশুরা সম্ভবত বিদ্যমান তথ্যগুলি নিজেরাই জানতে পারে। তবুও, তাদের গুজব থেকে সত্য পার্থক্য করার ক্ষমতা নাও থাকতে পারে। তারা আপনাকে এমন বার্তাগুলির মুখোমুখি করতে পারে যা আতঙ্ককে উস্কে দিতে পারে। শান্ত থাকুন এবং তাদেরকে বাস্তবতা বুঝতে সাহায্য করুন।
• শিশুদের রাগের মাত্রা বেড়ে যেতে পারে। এই প্রতিক্রিয়াটি সাধারণভাবে এই বয়সের একটি বৈশিষ্ট্য, তবে বাড়তি মানসিক চাপ, ভয় এবং অনিশ্চয়তার সময়ে রাগের প্রকোপ আরও বেশি হতে পারে।
• এই বয়সের শিশুরা তাদের সমবয়সী বন্ধুদের উপর আবেগগতভাবে নির্ভর করে। আপনার শিশু একটি কঠিন সময়ের মধ্য দিয়ে যাচ্ছে তা গ্রহণ করুন। তবুও,নিষেধাজ্ঞাগুলিতে ব্যতিক্রমের জন্য অনুমতি দেবেন না।
• এই বয়সের শিশুরা যখন বাড়িতে থাকে তারা প্রায়শই নিজেকে আলাদা করে রাখে। বিকাশের এই পর্যায়ে তাদের ক্ষেত্রে এটি স্বাভাবিক।
• এই বয়সের শিশুদের সত্যটা জানানো প্রয়োজন। আপনি যখন সত্য লুকিয়ে রাখছেন বা তাদের কাছ থেকে তথ্য গোপন রাখছেন তখন এগুলি খুব সংবেদনশীল হয় এবং তারা তাড়াতাড়ি জানতে পারে। এর ফলে তারা আপনাকে বৈধ তথ্যের উত্স হিসাবে বিশ্বাস করতে পারেনা।

(তথ্যসূত্র: এই ডকুমেন্টটি বৈশ্বিক সুরক্ষা ক্লাস্টার : শিশু সুরক্ষা দ্বারা প্রস্তুত “COVID 19: well-being of you and your children” এর বাংলা অনুবাদ সংস্করণ।

অনুবাদক: মোহাম্মদ ইউসুফ

(Visited 1 times, 1 visits today)

আরও পড়ুন

এবার মেয়েসহ করোনায়…
মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর অনুদান…
মুক্তাগাছায় বিশ্ব জনসংখ্যা…
মরহুম ফজলে রাব্বি…
অবশেষে জনসম্মুখে মাস্ক…
বিশ্বে একদিনে করোনার…
বঙ্গবন্ধুর জন্মশতবর্ষে চট্টগ্রাম…
বাংলালিংক-এর ত্রাণ কার্যক্রমের…
সাহারা খাতুনের মৃত্যুতে…

বৃহস্পতিবার শবে বরাত, তবে…

করোনাভাইরাসের তাণ্ডবে বিশ্বজুড়ে প্রাণহানি…

করোনাঃ মৃত্যু ১, নতুন…

হাটহাজারীতে এক হাজার পরিবারের…

বন্ধু নির্বাচন করনীয়