হাটহাজারী (চট্টগ্রাম) প্রতিনিধিঃ

হাটহাজারী উপজেলাধীন সন্দ্বীপ পাড়া একটি আলোচিত স্থানের নাম! কিন্তু এই এলাকার মানুষজন সব সময় অন্যান্য এলাকার তুলনায় প্রত্যন্ত অঞ্চলে অবস্থিত হওয়ায় অবহেলিত। এখানকার অসহায় হত দরিদ্রদের কেউ খোঁজ রাখে না।

করোনার ভাইরাসের প্রাদুর্ভাবে সন্দ্বীপ পাড়া কর্মহীন দীর্ঘদিন ধরে। ঘরে খাবার নেই। চক্ষুলজ্জায় হাতও পাততে পারেন না কারও কাছে। সন্তানসহ পরিবারের সবাইকে থাকতে হয় অভুক্ত, অর্ধভুক্ত। হাটহাজারী সদর এবং বিভিন্ন ইউনিয়ন পর্যায়ে সার্বিক সহযোগিতা পৌঁছানোর পাশাপাশি বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ প্রচার ও প্রকাশনা উপ-কমিটির অন্যতম সদস্য মোঃ রাশেদুল ইসলাম রাসেলের দৃষ্টি প্রত্যন্ত অঞ্চলে অসহায় মানুষের দিকেও।

এই আওয়ামী লীগ নেতার পক্ষ থেকে হাটহাজারী উপজেলার প্রত্যন্ত গ্রাম সন্দ্বীপ পাড়া প্রায় ৪০টি পরিবারের জন্য “খাদ্য সামগ্রীর উপহার” পৌঁছে দেওয়া হয়েছে। অত্র এলাকার সামাজিক সংগঠন “প্রকৃতি যুব সংঘ” এর সেচ্ছাসেবকের সহযোগিতা এবং সমন্বয়ক হিসেবে মোঃ আনিসুল ইসলাম জীবন, মোঃ নাজিম এর দায়িত্বশীল ভূমিকায় ঘরে থাকা মানুষের ঘরে ঘরে পৌঁছে দেওয়া হয়েছে এই উপহার।
মোঃ রাশেদুল ইসলাম রাসেল বলেন, “এই কঠিন সময়ে প্রত্যন্ত অঞ্চলের অসহায় মানুষের পাশে থাকার চেষ্টা করেছি। তাদের কথা ভুলে গেলে চলবে না। সচেতনতা সৃষ্টির পাশাপাশি কিছু খাদ্য সামগ্রী উপহার হিসেবে পাঠিয়েছি। দেশরত্ন শেখ হাসিনার নির্দেশে প্রত্যন্ত অঞ্চলও আমাদের মানবিক আওতায় থাকবে ইনশাল্লাহ।”
ইতিপূর্বে কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা উপ কমিটির সদস্য মোঃ রাশেদুল ইসলাম রাসেল তার মানবিক সহযোগিতার আওতায় চট্টগ্রাম-৫ আসনের অন্তর্ভুক্ত ১৪টি ইউনিয়ন, ১টি পৌরসভা ও চট্টগ্রাম মহানগরের ১নং পাহাড়তলী ও ২নং জালাবাদ ওয়ার্ডের ৩০০০ হাজারের অধিক পরিবারকে ৪ধাপে নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যাদি খাদ্য সহায়তা হিসেবে প্রেরণ করা হয়।
এছাড়াও তরুণ এই আওয়ামী লীগ নেতার উদ্যোগে উত্তর চট্টগ্রাম তথা হাটহাজারীতে সর্ব প্রথম “মানবতার বাজার” বসে, যেখানে সাধারণ মানুষজনকে বিনামূল্যে নিত্য প্রয়োজনীয় দ্রব্যাদি ও শাক সবজি বিতরণ করা হয়। প্রায় ১০-১২ টি স্পটে তার সরাসরি পৃষ্টপোষকতায় মানবতার বাজার অস্থায়ীভাবে বসলেও খুব অল্প সময়ে তা পুরো হাটহাজারী ও আশ পাশের এলাকায় ছড়িয়ে পড়ে।
পাশাপাশি তিনি হাটহাজারীবাসীর জন্য “হাটহাজারী ভার্চুয়াল পেসেন্ট কেয়ার সেন্টার” চালু করেন যেখানে ২৫০ এর অধিক বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকগণ ফ্রী চিকিৎসা সেবা দিচ্ছেন।
উল্লেখ্য হাটহাজারীতে প্রশাসনের পাশাপাশি রাজনৈতিক ব্যক্তি হিসেবে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা উপ-কমিটির এই সদস্য সর্ব প্রথম মানুষের পাশে দাঁড়ান। করোনা ভাইরাসের প্রাদুর্ভাবের শুরু থেকেই বিশেষ করে মার্চের ২য় সপ্তাহ থেকে তিনি মানুষকে সচেতন করার লক্ষ্যে লিফলেট, হ্যান্ড সেনিটাইজার, ফেস মাস্ক, হ্যান্ড গ্লাভস ইত্যাদি বিতরণ করেন। আর মার্চের শেষের দিক হতে খাদ্য সহায়তা দিয়ে আসছেন যা এখনো চলমান। তিনিন্তার এই খাদ্য সহায়তাকে ভালবাসার উপহার হিসেবে আখ্যায়িত করেছেন। তরুণ এই আওয়ামী লীগ নেতার সাথে কাজ করছেন স্থানীয় আওয়ামী লীগ, যুবলীগ, ছাত্রলীগ সহ বিভিন্ন সামাজিক সংগঠনের স্বেচ্ছাসেবকবৃন্দ।

(Visited 1 times, 1 visits today)

আরও পড়ুন

মৃত্যু বেড়ে ৩১১১,…
বাংলাদেশে বিমানবন্দর উন্নয়নে…
দেশে করোনায় আরও…
কাল পবিত্র হজ
দোষী সাব্যস্ত মালয়েশিয়ার…
বিশ্বজুড়ে করোনা থেকে…
মুসলিম সংখ্যাগরিষ্ঠ দেশ…
গরুর মাংসের ঝাল…
ফের সীমান্তে ভারতীয়দের…

বৃহস্পতিবার শবে বরাত, তবে…

করোনাভাইরাসের তাণ্ডবে বিশ্বজুড়ে প্রাণহানি…

করোনাঃ মৃত্যু ১, নতুন…

হাটহাজারীতে এক হাজার পরিবারের…

বন্ধু নির্বাচন করনীয়