মৃত্যুতে যুক্তরাষ্ট্র ইতালিকেও ছাড়িয়ে গেছে। যুক্তরাষ্ট্রে একদিনে দুই হাজার ১০৮ জনের মৃত্যু হয়েছে। কভিড-১৯ রোগে এখন পর্যন্ত এটাই একদিনে কোনো দেশে সর্বোচ্চ মৃত্যু। যুক্তরাষ্ট্রে ইতোমধ্যেই আক্রান্তের সংখ্যা পাঁচ লাখ ২১ হাজার ছাড়িয়ে গেছে। মৃত্যুতেও সবাইকে পেছনে ফেলছে দেশটি। গতকাল পর্যন্ত মারা গেছেন ২০ হাজারের বেশি মানুষ।

করোনাভাইরাসে আক্রান্ত ও মৃতের সার্বক্ষণিক হিসাব রাখা ওয়ার্ল্ডওমিটারের তথ্য অনুযায়ী, গতকাল শনিবার রাত ১২টা পর্যন্ত বিশ্বে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ১৭ লাখ ৬০ হাজার ৫৮৪ জন। আক্রান্তদের মধ্যে তিন লাখ ৯৪ হাজার রোগী সুস্থ হয়ে উঠেছেন। মারা গেছেন এক লাখ ৭ হাজার ৬২৫ জন। আক্রান্তদের মধ্যে ৫০ হাজার রোগীর (মোট আক্রান্তের ৪ শতাংশ) অবস্থা গুরুতর বা সংকটাপন্ন। গত ২৪ ঘণ্টায় বিশ্বে আক্রান্ত হয়েছেন ৮৫ হাজার ৬৯৪ জন। এ সময় মৃত্যু হয়েছে ৬ হাজার ১৫১ জনের।

স্পেনে গতকাল মারা গেছেন ৫১০ জন। এ পর্যন্ত মৃত্যু হয়েছে ১৯ হাজার ৪৬৮ জনের। ইউরোপের মধ্যে স্পেনেই সবচেয়ে বেশি লোক আক্রান্ত হয়েছেন এ রোগে। গতকাল পর্যন্ত আক্রান্ত হয়েছেন এক লাখ ৬১ হাজার ৮৫২ জন আর মৃত্যু হয়েছে ১৬ হাজার ৩৫৩ জনের।

করোনাভাইরাসের হানায় মৃত্যুপুরীতে পরিণত হওয়া ইতালি ও স্পেনে প্রাণহানি কমে আসছে। কমছে আক্রান্তের সংখ্যাও। তবে মৃত্যু বাড়ছে যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য ও ফ্রান্সে।

ভারতে আক্রান্তের সংখ্যা সাত হাজার ৫২৯ জনে। মৃতের সংখ্যা এখন ২৪২ জন। গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে আরও ৩৬ জনের মৃত্যু হয়েছে। অবনতিশীল পরিস্থিতির কারণে ভারতজুড়ে লকডাউনের মেয়াদ ৩০ এপ্রিল পর্যন্ত বাড়ানো হয়েছে।

ইন্দোনেশিয়ায় গতকাল ৩৩০ জন শনাক্ত আর ২১ জনের মৃত্যু হয়েছে। পাকিস্তানে মৃতের সংখ্যা ৭১-এ পৌঁছেছে। ব্রাজিলে মারা গেছেন এক হাজার ৫৬ জন। আক্রান্ত হয়েছেন প্রায় ২০ হাজার মানুষ। তুরস্কে মৃত্যু এক হাজার ছাড়িয়ে গেছে। আক্রান্ত হয়েছেন ৪৭ হাজারের বেশি মানুষ।

বাংলাদেশে ৩১ জেলায় মোট আক্রান্ত ৪৮২, মৃত্যু ৩০। গতকাল শনিবার নতুন আরও ৫৮ জনের শরীরে এই ভাইরাসের সংক্রমণ শনাক্ত হয়েছে। মৃত্যু হয়েছে তিনজনের। 

আইইডিসিআরের তথ্যে দেখা যায়, আক্রান্ত ৪৮২ জনের মধ্যে ২৫১ জন রাজধানীর বাসিন্দা। আর ঢাকার পার্শ্ববর্তী জেলা নারায়ণগঞ্জে ৮৩ জন। অন্যদিকে ঢাকা জেলায় আক্রান্ত হয়েছেন ১৮ জন। মোট আক্রান্তের মধ্যে এ জেলার দখলে ৩ দশমিক ৭৩ শতাংশ। এ ছাড়া মাদারীপুরে ১৩, গাজীপুরে ১২, মুন্সীগঞ্জে ১১, কিশোরগঞ্জে ১০, চট্টগ্রাম ও কুমিল্লায় আটজন করে, রাজবাড়ীতে ছয়, মানিকগঞ্জ, ময়মনসিংহ ও গাইবান্ধায় পাঁচজন করে, নরসিংদী, চাঁদপুর ও ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় চারজন করে, জামালপুরে তিন, টাঙ্গাইল, গোপালগঞ্জ, রংপুর, নীলফামারী ও শেরপুরে দু’জন করে আক্রান্ত হয়েছেন। অন্যদিকে একজন করে আক্রান্ত হয়েছেন কেরানীগঞ্জ, শরীয়তপুর, কক্সবাজার, সিলেট, মৌলভীবাজার, হবিগঞ্জ, চুয়াডাঙ্গা, নেত্রকোনা, বরগুনা ও পটুয়াখালীতে।

এদিকে বিভিন্ন জেলায় ওএমএসের চাল জব্দ, আটক করা হয়েছে কয়েকজনকে। আ’লীগ নেতা ও ডিলাররা চাল চুরিতে জড়িত। মোট আট জেলায় ৩৭৬ বস্তা সরকারি চাল জব্দ হয়েছে । প্রধানমন্ত্রীর হুশিয়ারি সত্ত্বেও বন্ধ হচ্ছে না। অভিযুক্তদের জরিমানা করেছে ও কারাদণ্ড দিয়েছে প্রশাসন। এসব চাল আত্মসাতে জড়িত স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতা, তাদের পরিবারের সদস্য, ইউপি সদস্য, ডিলার ও গ্রামপুলিশ। 

(বিজ্ঞাপন)
(Visited 1 times, 1 visits today)

আরও পড়ুন

মৃত্যু বেড়ে ৩১১১,…
বাংলাদেশে বিমানবন্দর উন্নয়নে…
দেশে করোনায় আরও…
কাল পবিত্র হজ
দোষী সাব্যস্ত মালয়েশিয়ার…
বিশ্বজুড়ে করোনা থেকে…
আয়া সোফিয়া দ্বন্দ্বে…
মুসলিম সংখ্যাগরিষ্ঠ দেশ…
গরুর মাংসের ঝাল…

বৃহস্পতিবার শবে বরাত, তবে…

করোনাভাইরাসের তাণ্ডবে বিশ্বজুড়ে প্রাণহানি…

করোনাঃ মৃত্যু ১, নতুন…

হাটহাজারীতে এক হাজার পরিবারের…

বন্ধু নির্বাচন করনীয়