ময়মনসিংহ রেলওয়ে ষ্টেশনে সংঘবদ্ধ ছিনতাইকারীর নিরাপদ আবাসস্থল।

সকালের কণ্ঠ

খালেদ খুররম পারভেজ, ময়মনসিংহ প্রতিনিধিঃ

ময়মনসিংহ রেলওয়ে ষ্টেশনে সংঘবদ্ধ ছিনতাইকারীর নিরাপদ আবাসস্থল। রেলওয়ে জংশনে আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতির অবনতি ঘটেছে।
প্রতিনিয়ত ময়মনসিংহ রেলওয়ে যাত্রীদের কাছ থেকে ছিনতাই করছে একদল ছিনতাইকারী। রেলওয়ে পুলিশ সে বিষয়ে আদও অবগত আছেন কি না তাই নিয়ে জনমনে প্রশ্ন আছে। নইলে প্লাটফর্মে ঘটে যাচ্ছে একের পর এক ছিনতাই ঘটনা আর তারা এ বিষয়ে কিছুই জানে না,এটা কি করে বিশ্বাস করা যায়! উল্লেখ্য স্টেশন প্লাটফরমে রয়েছে সিসি ক্যামেরা।অনেক বার ভুক্তভোগীরা অভিযোগ করার পরও কাজ হয় না।

বিজ্ঞাপন

ময়মনসিংহ রেলওয়ে ষ্টেশন এলাকা পুলিশের আশ্রয় পশ্রয়ে চোর, পকেটমার, ছিনতাইকারী ও মাদক র‌্যরসায়ীদের নিরাপদ অভয়াশ্রমে পরিনত হয়েছে বলে জানাগেছে । শহরের বিভিন্ন স্থানে অপরাধ সংঘটিত করে অপরাধীরা রেল ষ্টেশনে এসে আশ্রয় নেয় এবং রেলওয়ে পুলিশের সাথে চায়ের আড্ডা দিতে দেখা যায় । রেল ষ্টেশন এলাকার শীর্ষ সন্ত্রাশী ও ছিনতাইকারীর দোকানেই জিআরপি পুলিশ অপরাধীদের সাথে দোকানে বসে আড্ডায় মজে থাকে। প্রতিনিয়ত রেলওয়ে স্টেশনে ছিনতাই মত ঘটনা ঘটছে। এ বিষয়ে রেলওয়ে থানায় অভিযোগ করলে রেল পুলিশ বলে একটা জিডি করে যান আমরা বিষয়টা তদন্ত করে দেখবো। এটা বলেই খালাশ রেলওয়ে কত্যবরত পুলিশ বলে ভোক্তোভোগীরা অভিযোগ করেন।

গত ১০ মাসে শতাধিক পকেটমার ও ছিনতাইয়ের ঘটনা ঘটেছে। ট্রেনে উঠানামার সময় বেশির ভাগ যাত্রী ছিনতাইয়ের শিকার হন। ফলে প্রতিকার চাওয়ার সুযোগ থাকে না অনেকের। পুলিশ চিহ্নিত এসব পকেটমার ও ছিনতাইকারী স্টেশনে অবস্থান করলে তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা না নেয়ায় জনমনে ক্ষোভ দিন দিন বাড়ছে। এমনকি ছিনতাইকারীর হাতে নিহত কিংবা আহত হতে হচ্ছে যাত্রীদের।

অভিযোগে আরো জানাযায়, স্টেশন এলাকায় মাদকের ছয়লাব হয়ে পড়েছে। এদের প্রত্যেকের সাথেই জিআরপি থানার মাসোহারা রয়েছে বলে জানা গেছে। চট্রগ্রাম থেকে আসা ট্রেনে থেকে অবাদে মাদক নামছে এই স্টেশেনে। একাধীক যৌনর্কমী স্টেশনে দিবা-রাত্র ঘুড়ে বেড়ায়। এদের কাছ থেকে জিআরপি পুলিশ মাসোহারা নেয় বলে অভিযোগ রয়েছে। অপর দিকে এমন ভাসমান ১৫/২০টি দোকান থাকলেও সে গুলোর ব্যাপারে তিনি কোন পদক্ষেপ নেননি। এদিকে, গতকাল সন্ধায় ময়মনসিংহ পলিট্যাকনিক্যাল ছাত্র রিয়াজ ( ২১) কে এলোপ্যাথারী কুপিয়ে মারধর করে একদল ছিনতাইকারী। সে গৌরীপুর যাওয়ার পথে ট্রেন যোগে ৩ প্লাাট ফরমে আসার পথে একদল ছিনতাইকারী তার পথরোধ করে তার সব কিছু ছিনিয়ে নিতে চায়। এক র্পযায়ে ছিনতাইকারীদল তার মাথা ও পায়ে আঘাত করে পালিয়ে যায়। অথচ সবার সামনে এ ঘটনা ঘঠে। রেলওয়ে থানার একজন পুলিশ কর্মকর্তাও ঘটনা স্থলে ছিলনা। বর্তমানে ময়মনসিংহ মমেক হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রয়েছে।

রেলওয়ে থানা পুলিশ টিকেট কালোবাজারীদের গ্রেফতার করে সামাজিক যোগযোগ মাধ্যমে ছবি দিয়ে বাহ্ বাহ্ নিচ্ছে। ছিনতাইকারীকে আটক করে কখনো সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে দেখা যায়না। কিছু ছিটকে চুর গ্রেফতার করলেও বড় চোর গুলো তাদের সোর্স হিসাবে থাকার অভিযেগ রয়েছে।

রেলওয়ে কর্মরত একজন নাম অনিচ্ছুক বলেন, কি বলবো বলেন। রেলওয়ে থানা পুলিশ কোন কাজ করেনা। ওসি সাহেবকে ফোন দিলেও সে রিসিভ করেনা। রেলওয়ে থানা পুলিশ ছিনতাইকারী চোর গ্রেফতার করে কি করবে! তারা ট্রেনের ছাদে আসা যাত্রীদের গ্রেফতার করে নিয়ে যায়। মামলা ভয় দেখিয়ে টাকা নিয়ে যায়!

তবে যারা আহত হচ্ছে তারা কাদের মাধ্যমে আহত হচ্ছে, বলা যায় কি? একের পর এক ঘটনা ময়মনসিংহের রেলওয়ে আইন শৃঙ্খলা পরিস্থিতির অবনতিই প্রমাণ করে।

ময়মনসিংহ নাগরিক আন্দোলনের সাধারণ সম্পাদক নুরুল আমীন কালাম গ্রামীন নিউজ কে বলেন ময়মনসিংহ রেলস্টেশন দীর্ঘদিন চুরি, ছিনতাই, পকেটমার ও মাদকসহ বিভিন্ন অপরাধীদের স্বর্গরাজ্যে পরিণত হয়েছে। প্রতিদিন রেলযাত্রীরা নিঃস্ব হচ্ছে। তিনি রেলওয়ে পুলিশকে দ্রুত ব্যবস্থা নেয়ার আহ্বান জানান। অন্যথায় নাগরিক আন্দোলন নাগরিকদের বৃহত্তর স্বার্থে আন্দোলনে নামবে।

ময়মনসিংহ রেলওয়ে থানার অফিসার ইনচার্জ মোশাররফ হোসেন জানান, সীমিত সংখ্যক জনবল নিয়ে দুইশত কিলোমিটার রেল এলাকা নিয়ে গঠিত ময়মনসিংহ জিআরপি থানা। অফিসার ও কনস্টেবল সহ ৩৬ জন জনবল দিয়ে কাজ করতে হয়এর আন্তঃনগর ৪টি ট্রেনে ১২ জন ডিউটি করে প্রতিদিন। পকেটমার ও ছিনতাইকারীরা সকলেই ময়মনসিংহ তার আশপাশের। ছিনতাইকারী ও পকেটমারদের অভিযান অব্যাহত রয়েছে। ১৫/২০ ছিনতাইকারী ও পকেটমার গ্রেপ্তার করে জেলে পাঠিয়েছি। নতুন নতুন ছিনতাইকারী ও পকেটমার সৃষ্টি হয়। ফলে দমন করা যাচ্ছে না।

(Visited 1 times, 1 visits today)

আরও পড়ুন

রাউজানে করোনা প্রতিরোধে…
করোনা প্রতিরোধে ব্যতিক্রমী…
কলকাতায় লকডাউনে সংসার…
ইতালিতে করোনায় একদিনেই…
বাংলাদেশের স্বাধীনতা দিবসে…
করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে…
বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম…
নিজে ভালো থাকুন,…
করোনা থেকে সুরক্ষায়…

বাংলাদেশের স্বাধীনতা দিবসে পাক…

করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে রাত…

নিজে ভালো থাকুন, দেশকে…

করোনা থেকে সুরক্ষায় বিশ্বময়…

করোনায় নিউ ইয়র্কে একদিনে…